ABP Exclusive: Bengali Coach Debu Mitra Behind The Change Of CSK New Captain Ravindra Jadeja, Know In Details

0

[ad_1]

কলকাতা: বৃহস্পতিবার বিকেলে খবরটা পেয়েই খুশি হয়েছিলেন। কিংবদন্তি মহেন্দ্র সিংহ ধোনির (MS Dhoni) পরিবর্তে চেন্নাই সুপার কিংসের (CSK) অধিনায়ক হয়েছেন ছাত্র। যে ছাত্রের ক্রিকেটবিশ্বকে শাসন করার নেপথ্যে রয়েছে তাঁরও অবদান।

রবীন্দ্র জাডেজার (Ravindra Jadeja) নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তিতে তৃপ্ত বাঙালি গুরু দেবু মিত্র (Debu Mitra)। যিনি সৌরাষ্ট্র্রের কোচ থাকাকালীন জাতীয় ক্রিকেটের মঞ্চে জাডেজার অভ্যুত্থান ঘটেছিল। তারপর থেকে যত্ন করে আগলে রেখেছিলেন ছাত্রকে। দিয়েছেন পরামর্শ। এমনকী, কিছুদিন আগেও বোলিং অ্যাকশন পাল্টানোর মন্ত্র দিয়েছিলেন। যে পরামর্শ শুনে নিজের বোলিংকে আরও শান দিয়েছেন জাডেজা।

শুক্রবার এবিপি লাইভকে প্রবীণ কোচ বললেন, ‘প্রথম যখন জাডেজাকে দেখি, তখন ওর ১৯ বছর বয়স। বিরাট কোহলির নেতৃত্বে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জিতে সদ্য ফিরেছে। ওকে দেখেই মনে হয়েছিল, এ ছেলে লম্বা দৌড়ের ঘোড়া। ঝুঁকি নিয়ে রঞ্জি ট্রফি খেলিয়ে দিয়েছিলাম। তার ফল এখন সকলের চোখের সামনে। সেই জাডেজা এখন চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক। তখনকার চেয়ে ও এখন অনেক বেশি পরিণত।’

কোচ হিসাবে বরাবরই নির্লিপ্ত দেবু। অধিনায়ক জাডেজাকে নিয়ে বড়সড় কোনও পূর্বাভাস করতে চান না। বললেন, ‘অধিনায়ক রবীন্দ্র জাডেজাকে সেভাবে পাইনি আমি। কোনওদিন ওকে নেতৃত্ব দিতে দেখিনি। তবে ভীষণ দ্রুত শিখে নেয়। ক্রিকেট মস্তিষ্ক ক্ষুরধার। খেলাটা খুব ভাল বোঝে। বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। সিএসকে-র দায়িত্বপ্রাপ্তি ওর জন্য ভাল। ক্রিকেটের জন্যও ভাল।’

দেবু আরও বললেন, ‘বোলার হিসাবে ও অসাধারণ। ভারতীয় দলে ঢুকেছিল বোলার হিসাবে। পরে আমার সঙ্গে থেকে থেকে ব্যাটিংয়ে উন্নতি করেছে। একটা সময় জাতীয় দলের হয়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেললেও টেস্ট দলে সুযোগ পাচ্ছিল না। যখন দেখেছে ব্যাটিং ছাড়া ভারতীয় টেস্ট দলে নিয়মিত সুযোগ পাচ্ছে না, তখন ব্যাটিংয়ে জোর দিতে শুরু করে। আমার পরামর্শ মেনে এক মাসের মধ্যে ব্যাটিংয়ের ভুল শুধরে নিয়েছিল। এত দ্রুত কাউকে শিখতে দেখিনি। অনেককে চোদ্দবার বলতে হয়। তারপরেও ভুল করে। ওকে একবার বলেছিলাম। তাতেই বদলে গিয়েছিল। আমার মনে হয় অধিনায়ক জাডেজাও খুব দ্রুত সব কিছু শিখে নেবে। হতাশ করবে না।’

কী বদল? ‘এ নিয়ে প্রকাশ্যে আলোচনা করব না। তবে মানসিকভাবে কীভাবে আরও শক্তিশালী হওয়া যায়, বলেছিলাম। ও একমাসের মধ্যে বদল করেছিল নিজেকে। যার ফল, সেবার এক মরসুমে পরপর দুটো ট্রিপল সেঞ্চুরি করেছিল। রঞ্জিতে বাংলাকে হারিয়েছিলাম ওর পারফরম্যান্সের জোরে। ও প্রথম ইনিংসে পাঁচটি ও দ্বিতীয় ইনিংসে চারটি উইকেট পেয়েছিল,’ বললেন দেবু।

গেমপ্ল্যান তৈরিতে কতটা মুন্সিয়ানা দেখাবেন ক্যাপ্টেন জাডেজা? দেবু বলছেন, ‘এত বছর ধরে যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছে, ফিল্ডিং সাজানো হোক বা স্ট্র্যাটেজি তৈরি, ও তো পারদর্শী হবেই। সৌরাষ্ট্রের হয়ে খেলার সময় দেখেছি, অধিনায়ককে অনেক সময় ফিল্ডিং পাল্টাতে বলেছে। দেখা গিয়েছে যে, ওর কথা মতো ফিল্ডিং সাজিয়ে প্রতিপক্ষের উইকেট তোলা গিয়েছে।’ যোগ করলেন, ‘সিএসকে-তে ধোনিকে পাশে পাবে। ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক ধোনি। সমস্ত আইসিসি ট্রফি জিতেছে। ধোনির কাছে পরামর্শ চাইতে পারবে। এটা জাডেজার দারুণ সুবিধা।’

সম্প্রতি জাডেজার বোলিং অ্যাকশনে কিছু পরিবর্তন করিয়েছিলেন দেবু। শোনালেন সেই কাহিনীও। বললেন, ‘আমি এখন কলকাতা ময়দানের কাস্টমস ক্লাবের কোচ। আমাদের দলে চিরাগ পাঠক খেলে। চিরাগ সৌরাষ্ট্রের ক্রিকেটার। আমার কোচিংয়ে রঞ্জি খেলেছে। একদিন মাঠে ওর সঙ্গে বসে জাডেজার বোলিংয়ের ভিডিও দেখেছিলাম। জাডেজা তখন পায়ের চোটে মাঠের বাইরে। আমি ওর বোলিং অ্যাকশনের ভিডিও দেখে কিছু পরিবর্তন করতে বলেছিলাম। সেটা জামনগরে গিয়ে ওকে বলে চিরাগ। অবাক হয়ে গিয়েছিল জাড্ডু। ও জানতে চেয়েছিল, দেবু স্যার এখনও এত খবর রাখে। তারপর অবশ্য অ্যাকশন পাল্টায়। তাতে ওর বোলিংয়ের ধার আরও বেড়েছে।’ দেবু যোগ করলেন, ‘ওকে অভিনন্দন জানিয়ে মেসেজ করেছিলাম। ও জবাব দিয়েছে। আইপিএলে অধিনায়ক হিসাবে ও ভালই করবে।’

[ad_2]
Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here