Bengal Second Runner Up In Recently Held National Kickboxing Championship For 7 To 10 Years

0

[ad_1]

কলকাতা: খুদেদের কিক বক্সিংয়ে (Kick Boxing) বড় সাফল্য বাংলার। অনূর্ধ্ব ৭ থেকে অনূর্ধ্ব ১০ বয়সসীমার জাতীয় স্তরের প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থানে শেষ করল বাংলা। সাতটি সোনা, সাতটি রুপো ও ৮টি ব্রোঞ্জ-সহ মোট ২২টি পদক জিতেছে বাংলা।

ওয়েস্ট বেঙ্গল স্পোর্টস কিকবক্সিং অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত টুর্নামেন্টে পদক জিতেছে কলকাতার তিন খুদে। পয়েন্ট ফাইট বিভাগে সোনা জিতেছে শালিনি হেলা ও বিল্টু সর্দার। লাইট কনট্যাক্ট ফাইট বিভাগে রুপো জিতেছে শালিনি হেলা ও শ্লোক জৈন। ওই বিভাগে ব্রোঞ্জ জিতেছে বিল্টু।

ওয়াকোর আন্তর্জাতিক রেফারি তথা কলকাতা জেলা কিক বক্সিং সংস্থার সাধারণ সচিব পার্থ মিত্র বলছেন, ‘কোভিডের পর অনূর্ধ্ব ৭ থেকে অনূর্ধ্ব ১০ বিভাগে এটাই প্রথম জাতীয় স্তরের টুর্নামেন্ট। শিলিগুড়িতে বিএসএফের ফিফটিনথ ব্যাটেলিয়নের ক্যাম্পাসে এই প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয়েছিল। বাংলা থেকে মোট ২৩ জন অংশগ্রহণ করেছিল। কলকাতা থেকে তিনজন অংশ নিয়েছিল। বাংলার পারফরম্যান্স বেশ ভাল। আমরা সাতটি সোনা, সাতটি রুপো ও আটটি ব্রোঞ্জ জিতেছি। কলকাতার প্রতিযোগীরা দু’টি সোনা, দু’টি রুপো ও একটি ব্রোঞ্জ জিতেছে।’

পার্থ আরও বলছেন, ‘দু’বছর সেভাবে প্রস্তুতিই হয়নি। তারপরেও এই পারফরম্যান্স দারুণ অভিজ্ঞতা। ২০২১ সালের অক্টোবর মাসের পর থেকে আমরা ঠিকমতো ট্রেনিং করতে পেরেছি। কম সময়ের মধ্যে প্রচুর পরিশ্রম করতে হয়েছে আমাদের। তাই ছেলে-মেয়েদের ওপর বেশ চাপ পড়েছে। তবে এই সাফল্য ওদের সব ধকল ভুলিয়ে দেবে। খুদে প্রতিযোগী ও তাদের মা-বাবা, সকলেই খুব খুশি।’

করোনা অতিমারির পরে প্রথম চিলড্রেন্স ন্যাশনাল আয়োজিত হয়েছিল শিলিগুড়িতে। সেখানে নজরকাড়া পারফরম্যান্সের পর পরবর্তী লক্ষ্যও সাজিয়ে ফেলেছেন পার্থ। বলছেন, ‘যাদের বয়স দশ পেরিয়ে গিয়েছে, তাদের ক্যাডেট ও জাতীয় যুব মিটের জন্য প্রস্তুতি শুরু হবে এরপর। পাশাপাশি আগামী অগাস্ট মাসে আন্তর্জাতিক মিট রয়েছে। তার জন্য প্রস্তুতি শুরু হবে।’

আরও পড়ুন: উনিশেই মৃত্যু বাংলার প্যারা সাঁতারুর, অর্থাভাবে মিলছে না দেহ, দিশেহারা বাবা

[ad_2]
Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here