IPL 2022 Exclusive: Wriddhiman Saha Might Be Extra Motivated In This IPL, Childhood Coach Jayanta Bhowmick Tells ABP Live

0

[ad_1]

কলকাতা: আজীবন যিনি বিতর্ক থেকে শত হস্ত দূরে থেকেছেন, সেই ঋদ্ধিমান সাহাকে (Wriddhiman Saha) ঘিরেই ভারতীয় ক্রিকেটে সাম্প্রতিক কালের সবচেয়ে বড় ঝড় উঠেছিল। জাতীয় টেস্ট দল থেকে বাদ পড়ার পরই বঙ্গ উইকেটকিপার বোমা ফাটিয়েছিলেন। বলেছিলেন, জাতীয় দলের হেড কোচ রাহুল দ্রাবিড় (Rahul Dravid) তাঁকে অবসর নিয়ে নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন!

ক্ষোভে, হতাশায় রঞ্জি ট্রফি (Ranji Trophy) থেকেও নিজেকে দূরে সরিয়ে রেখেছিলেন বাংলার সর্বকালের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার। আইপিএলে (IPL) ঋদ্ধিমান সাহা এবার খেলবেন নতুন দলে। তাঁকে কিনেছে গুজরাত টাইটান্স (Gujarat Titans)। হার্দিক পাণ্ড্যর (Hardik Pandya) দলে উইকেটকিপার তিনি। সোমবার লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিরুদ্ধে মাঠে নামছেন।

প্রমাণ করতে মরিয়া

আর সেই ম্যাচের আগে ঋদ্ধিমানের শৈশবের কোচ জয়ন্ত ভৌমিক জানিয়ে দিচ্ছেন, এবারের আইপিএলে ছাত্রের মধ্যে বাড়তি তাগিদ দেখা যেতেই পারে। ঋদ্ধিমান সাহা যে ফুরিয়ে যায়নি, সেটা প্রমাণ করতে কি মরিয়া থাকবেন বঙ্গ উইকেটকিপার? এবিপি লাইভকে জয়ন্ত বললেন, ‘মানুষমাত্রই এরকম পরিস্থিতিতে একটা চিন্তাভাবনা আসতেই পারে। ও মানসিকভাবে বরাবরই খুব দৃঢ়। এই মুহূর্তে মানসিক দিক থেকে দারুণ জায়গায় রয়েছে। নিজের প্রস্তুতি নিয়ে পরিশ্রম করেছে। সমস্যা নিয়ে বেশি ভাবলে পারফরম্যান্সে প্রভাব পড়বে। তাহলে খেলবে কীভাবে! পাপালি (ময়দানে এই নামেই পরিচিত ঋদ্ধিমান) লক্ষ্যে অবিচল। আজকের ম্যাচের দিকেই তাকিয়ে রয়েছে।’

নিজেকে নতুন করে প্রমাণ করার জন্য কি বাড়তি তাগিদ দেখা যাবে ঋদ্ধিমানের খেলায়? জয়ন্ত বলছেন, ‘বাড়তি তাগিদ থাকতেই পারে। মানুষ তো। কাউকে দেখে সেটা বোঝা যায়। কেউ বুঝতে দেয় না। এরকম পরিস্থিতিতে সকলের মধ্যেই ছটফটানি থাকবে। মাঠে নেমে যে কোনও ক্রিকেটারই একশো শতাংশ উজাড় করে দেওয়ার চেষ্টা করবে। পাপালিও সেটাই করবে। আমার সঙ্গে যেটুকু কথা হয়েছে তাতে ও আইপিএল খেলতে মুখিয়ে রয়েছে। ওর শারীরিক ফিটনেস নিয়ে কোনও সমস্যা নেই। মানসিকভাবে দারুণ জায়গায়।’

বিতর্ক আর ঋদ্ধিমান

বিতর্ক কতটা বিব্রত করেছে ছাত্রকে? ‘গত কয়েকমাস ধরে ওকে ঘিরে যা ঘটেছে, সেটা জীবনের একটা অঙ্গ। তবে আইপিএলে আজ নতুন দলের জার্সিতে নামছে, নতুন করে অভিযান শুরু করছে। গত কয়েকমাসের ঘটনাপ্রবাহের সঙ্গে এর কোনও সম্পর্ক আমি দেখছি না। ও যে ধরনের মানুষ, তাতে সব কিছু আলাদা করে ভাবতে জানে। ব্যক্তিজীবন ও ক্রিকেট কেরিয়ারকে কখনও এক করে দেখে না। আবার জাতীয় দল বা আইপিএল নিয়েও আলাদারকম চিন্তাভাবনা করে,’ বলছিলেন জয়ন্ত। শিলিগুড়িতে ছোটবেলা যাঁর হাত ধরে ক্রিকেটে প্রবেশ করেছিলেন ঋদ্ধিমান।

সুপারফিট পাপালি

জয়ন্ত আরও বললেন, ‘নিজের খেলার ওপর মনোনিবেশ করেছে পাপালি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি জরুরি ফিটনেস। যে দিক থেকে ও দুর্দান্ত জায়গায় আছে। ক্ষিপ্রতা একটুও কমেনি। ও প্র্যাক্টিসের মধ্যেও আছে। তবে খেলাটা হল ক্রিকেট। মহান অনিশ্চয়তার খেলা। ও ভাল খেলার চেষ্টা করবে।’ যোগ করলেন, ‘ও সম্পূর্ণ আলাদা ধাঁচের ছেলে। গত কয়েকমাস যা হয়েছে আইপিএলে তার প্রভাব পড়তে দেবে না। দুটো জিনিস ও মিলিয়ে ফেলবে না। এখন পুরোপুরি আইপিএলে প্রথম ম্যাচে মনোনিবেশ করছে। নিজের খেলা নিয়ে ভাবছে। বাকি ব্যাপারগুলো ও কাটিয়ে উঠতে জানে। সে জন্যই ও এতদূর পৌঁছেছে। আগ বাড়িয়ে বেশি কথা বলা বা নিজের খেলা নিয়ে বেশি প্রচার করে না।’

জয়ন্ত জানালেন, শুধু উইকেটকিপার নয়, ঋদ্ধির কাঁধে আরও বড় দায়িত্ব রয়েছে। বললেন, ‘ও তো শুধু উইকেটকিপার নয়। ব্যাটারও। দুদিক থেকেই নিজের সেরাটা দেবে। ওপেন করতে পছন্দ করে। তবে সিদ্ধান্ত টিম ম্যানেজমেন্টের। দল কখন নামাবে সেটা আমরা বাইরে থেকে বলতে পারব না। তবে যখনই নামুক, ভালই পারফর্ম করবে বলে আশা করছি।’

আইপিএলে আজ মাঠে নামছেন শুভমন, সুদূর স্কটল্য়ান্ডে ছুটি কাটাচ্ছেন ‘বান্ধবী’ সারা

[ad_2]
Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here