IPL 2022: Five Occasions When Kieron Pollard Was At His Devastating Best

0

[ad_1]

বার্বাডোজ: ওয়েস্ট ইন্ডিজের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ১০০ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি (T-20) ম্যাচ খেলার নজির গড়েছিলেন। ২০০৭ সালে ওয়ান ডে ফর্ম্যাটে অভিষেক হওয়ার পর থেকে সাদা বলের ক্রিকেটে বিশ্বব্যাপী নিজের গ্রহণযোগ্যতা ছড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনি। অবশেষে গতকাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কায়রন পোলার্ড (Kieron Pollard)। দেশের জার্সিতে ১২৩টি ওয়ান ডে ও ১০১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন পোলার্ড। যদিও টেস্ট খেলার সুযোগ হয়নি পোলার্ডের।

একনজরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পোলার্ডের সেরা পাঁচ ইনিংস

১. ৫৫ বলে ৯৫ (বিপক্ষ: আয়ারল্যান্ড, ২০১১)

ভারতের মাটিতে বিশ্বকাপের মঞ্চ। কায়রন পোলার্ডের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ। ২০০৭ সালে ঘরের মাঠে বিশ্বকাপে অভিষেক হলেও তখন নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি। কিন্তু চার বছর পরে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে প্রথমবার জ্বলে উঠলেন পোলার্ড। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে ডেভন স্মিথের সঙ্গে জুটি বেঁধে বিশাল স্কোর বোর্ডে তুলে নেন পোলার্ড। মোহালিতে সেই ম্যাচে ৫৫ বলে ৯৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন তিনি। ম্যাচও হেসেখেলে জিতে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

২. ওয়ান ডে-তে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ১১১ (বিপক্ষ: ভারত, ২০১১)

ভারতের মাটিতে বরাবরই খেলতে ভালবাসেন কায়রন পোলার্ড। ২০১১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভারত সফরে মিডল অর্ডারে দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছিলেন তারকা ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার। সেই সিরিজেই ৫ ইনিংসে ১৯৯ রান করেছিলেন পোলার্ড। এছাড়াও চেন্নাইয়ে নিজের ওয়ান ডে কেরিয়ারের সেরা ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ১১৯ রান করেছিলেন।

৩. ৭০ বলে ১০২ (বিপক্ষ: অস্ট্রেলিয়া, ২০১২)

শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধেও সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন পোলার্ড। তাও আবার একেবারে মারমুখি মেজাজে। ৭০ বলে ১০২ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন পোলার্ড। শেন ওয়াটসন, জ্যাভিয়ের দোহার্টি, ব্রেট লির সামনে দারুণভাবে ঝলসে উঠলেন ডানহাতি এই অলরাউন্ডার। ৩২ বলে ৩৪ রানের ইনিংস খেলেন আন্দ্রে রাসেল। ষষ্ঠ উইকেটে জুটি বেঁধে ৯৪ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন। যদিও ইনিংসের শেষ ওভারে লির বলেই আউট হন পোলার্ড। সেই ম্যাচেই নিজের ওয়ান ডে কেরিয়ারের দ্বিতীয় শতরান হাঁকিয়েছিলেন পোলার্ড। 

৪. টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিতে অলরাউন্ড পারফরম্যান্স (বিপক্ষ: অস্ট্রেলিয়া, ২০১২)

সালটা ২০১২। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সেবারই প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ঘরে তোলে। সেই টুর্নামেন্টে সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাটে-বলে জ্বলে উঠেছিলেন পোলার্ড। কলম্বোয় হওয়া সেই ম্যাচে মাত্র ১৫ বলে ৩৮ রানের ইনিংস খেলেন। নিজের ইনিংসে ৩টি বাউন্ডারি ও ৩টি ছক্কা হাঁকান পোলার্ড। সেই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে দুশোর গণ্ডি পেরিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওপেনিংয়ে ৪১ বলে অপরাজিত ৭৫ রানের ইনিংস খেলেন ক্রিস গেল। পরে বল হাতে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক জর্জ বেইলি ও অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান টেস্ট দলের অধিনায়ক প্যাট কামিন্সকে আউট করেন। 

 ৫. এক ওভারে ছয় ছক্কা (বিপক্ষ শ্রীলঙ্কা, ২০২১)

গত বছর কেরিয়ারের গোধূলিতেও রেকর্ডবুকে নাম লিখেছেন কায়রন পোলার্ড। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ছয় বলে ছয় ছক্কা মারার নজির গড়েন কায়রন পোলার্ড। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে  এই বিরল নজির গড়েন পোলার্ড। এর আগে হার্শেল গিবস ও যুবরাজ সিংহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ছয় বল ছয় ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন। সেই ম্যাচেই আকিলা ধনঞ্জয় হ্যাটট্রিক করেছিলেন লুইস, গেল ও পুরানকে আউট করে। কিন্তু পোলার্ড ক্রিজে এসেই চালিয়ে খেলা শুরু করেন। 

 

[ad_2]
Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here